‘মেয়েরা ফুটবল খেলবে ভাবতে পারতো না অনেকেই’

0
bbc_nocredit

মাঠে অনুশীলনে ব্যস্ত জাতীয় মহিলা ফুটবল দলের ক্যাপ্টেন সুইনু প্রু মারমা

 

 

গাজীপুরের আনসার একাডেমীর মাঠে বল নিয়ে অনুশীলন চলছে। বল পায়ে নিয়ে দৌড়ে এগিয়ে যাচ্ছেন ছোট-খাট গড়নের শান্ত চেহারার একটি মেয়ে।

জাতীয় মহিলা ফুটবল দলের অধিনায়ক সুইনু প্রু মারমা। ২০১১ সাল থেকে বাংলাদেশের জাতীয় ফুটবল দলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন। কিন্তু এই পথ কতটা মসৃণ ছিল সুইনুর?

 

“যখন মহিলা ফুটবল শুরু হয় তখন জামাত-শিবিরের অনেকের আপত্তি ছিল কেন মেয়েরা হাফপ্যান্ট পরে ফুটবল খেলবে? এমনও হয়েছে মাঠে খেলা শুরুর পরও আমাদের উঠে আসতে হয়েছে। সেই অবস্থা থেকে উঠে এসে এখন গ্রামে-গঞ্জে এখন মেয়েরা ফুটবল খেলছে। সত্যিই এখন অনেক ভালো লাগে।” শুরুর দিকে ধর্মীয় উগ্রপন্থীদের কতটা রোষানলে পড়তে হয়েছিল তাদের অনুশীলনের ফাঁকে বিবিসি বাংলার সাইয়েদা আক্তারের সাথে আলাপকালে সে কথাই বলছিলেন সুইনু ।

 

প্রথম মেয়েদের জাতীয় ফুটবল দল গড়ে তোলার উদ্যোগ নেয়া হলে দেশের ধর্মীয় গোষ্ঠীগুলো বহু মিছিল-সমাবেশ ও বিক্ষোভ করেছে। সে অবস্থা পেরিয়ে এ দেশেরে মেয়েরা একদিন সত্যিই ফুটবল খেলবে সেটা তখন অনেকেই ভাবতে পারেননি। কিন্তু আজ বিভিন্ন গ্রাম থেকেও খেলতে আসছে মেয়েরা। জেলা থেকে বিভাগীয় পর্যায়ে, সেখান থেকে জাতীয় পর্যায়ে খেলছে।

 

২০০৬ সাল থেকে জাতীয় দলের মাঝমাঠে খেলছেন সুইনু প্রু। রাঙ্গামাটির প্রত্যন্ত গ্রাম কাউখালিতে জন্ম নেয়া সুইনু প্রু মারমা স্কুল পর্যায়ে সব ধরনের খেলায় অংশ নেন। পরে বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর এক ক্যাম্পে অংশ নেয়ার পর সুইনু ফুটবলকেই বেছে নেন নিজের লক্ষ্য হিসেবে। পরিবার থেকে বাধা ছিল না। তবে চারপাশের মানুষের বক্রদৃষ্টি এবং দ্বিধাগ্রস্তটা এখনো রয়েছে। সেইসাথে মেয়েদের ফুটবল নিয়ে একধরনের উদাসীনতার বিষয়টিও উঠে আসে তার কথায়।

 

“ভালো খেলার জন্য অনুশীলন চালিয়ে যেতেই হবে। মেয়েরা অনেকসময় বসে থাকে। নিয়মিত অনুশীলন চালাতে পারলে মহিলা ফুটবল অনেকদূর যেতে পারতো। ফেডারেশন যদি আরেকটু উদ্যোগ নিত আর স্পন্সররা যদি এগিয়ে আসতো তাহলে মহিলা ফুটবলের জন্য অনেক ভালো হতো” ভবিষ্যতে নিজেকে একজন ফুটবল কোচ হিসেবে প্রতিষ্ঠার স্বপ্ন দেখেন সুইনু। আর সামাজিক ও রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটে যতই বাধাই আসুক না কেন, সব বাধা পেরিয়ে তার মত সব মেয়েকেই অসম্ভবকে সম্ভব করার পথে এগিয়ে যেতেই হবে বলে মনে করেন তিনি।

Comments

comments

Menu

Koreabashi