বার্সার বিপক্ষে বায়ার্নের কঠিন চ্যালেঞ্জ

0

Barca36

 

চ্যাম্পিয়নস লিগের সেমিফাইনালের প্রথম লেগে বায়ার্ন মিউনিখকে ৩-০ গোলে উড়িয়ে দিয়ে ফাইনালে এক পা দিয়ে রেখেছে বার্সেলোনা। শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচ খেলতে হলে দ্বিতীয় লেগে বায়ার্নকে জিততে হবে ৪-০ গোলে।

 

ইতিহাস জানাচ্ছে, চ্যাম্পিয়নস লিগের সেমিফাইনালের প্রথম লেগে ৩-০ গোলে পিছিয়ে পড়ে কোনো দলই ফাইনাল খেলতে পারেনি! অর্থাৎ এবারের ফাইনাল খেলতে হলে বায়ার্নকে গড়তে হবে নতুন ইতিহাস, যা জার্মান দলটির জন্য বিশাল এক চ্যালেঞ্জ। বলা ভালো, অলৌকিক কিছুই করে দেখাতে হবে পেপ গার্দিওলার শিষ্যদের।

 

মঙ্গলবার বায়ার্নের মাঠ আলিয়াঞ্জ অ্যারেনায় ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় রাত পৌনে ১ টায়। সরাসরি দেখাবে টেন অ্যাকশন ও টেন স্পোর্টস চ্যানেল।  

 

২০১২-১৩ মৌসুমে চ্যাম্পিয়নস লিগের সেমিফাইনালে দুই লেগ মিলিয়ে বায়ার্নের কাছে ৭-০ গোলে হেরে ফাইনালের স্বপ্ন ভেঙেছিল বার্সার। প্রথম লেগে বায়ার্নের মাঠে ৪-০ গোলে হারের পর ফিরতি লেগে নিজেদের মাঠে ৩-০ গোলে হেরেছিল স্প্যানিশ জায়ান্টরা। তবে গত সপ্তাহে প্রথম লেগে নিজেদের মাঠে লিওনেল মেসির জাদুতে বায়ার্নকে ৩-০ গোলে হারিয়ে গতবারের প্রতিশোধ নিয়েছে বার্সা। এবার বায়ার্নের মাঠে ফিরতি লেগ জিতে মধুর প্রতিশোধ নেওয়ার সুযোগ বার্সার সামনে। 

 

এ বছরের শুরু থেকেই দারুণ ছন্দে রয়েছে বার্সা। সব ধরনের প্রতিযোগিতা মিলে শেষ ১৮ ম্যাচের ১৭টিতেই জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে লুইস এনরিকের শিষ্যরা। নিজেদের শেষ আট ম্যাচে বার্সা গোল করেছে মোট ২৮টি। এমনকি শেষ সাত ম্যাচে একটি গোলও হজম করেনি তারা! ভাবা যায়?

 

বার্সার আক্রমণভাগের ত্রয়ী মেসি-নেইমার ও সুয়ারেজ তো আছেন দারুণ ফর্মে। বার্সার ইতিহাসে যেকোনো ত্রয়ীর এক মৌসুমে সর্বোচ্চ গোলের রেকর্ড এরই মধ্যে ভেঙে দিয়েছেন ‘এমএসএন’ নামের এই ত্রয়ী। সব ধরনের প্রতিযোগিতা মিলে এখন পর্যন্ত মেসি-নেইমার-সুয়ারেজ করেছেন ১১২ গোল। আর ৭ গোল করলে রিয়াল মাদ্রিদের ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো, গঞ্জালো হিগুয়েন ও করিম বেনজেমা ত্রয়ীর এক মৌসুমে করা সর্বোচ্চ ১১৮ গোলের রেকর্ডটিও ভেঙে দেবেন বার্সা ত্রয়ী। 

 

অপরদিকে চার ম্যাচ হাতে রেখে বুন্দেসলিগার শিরোপা জেতার পর থেকেই ছন্দ হারিয়ে ফেলেছে বায়ার্ন। বুন্দেসলিগায় শেষ দুটি ম্যাচেই হেরেছে পেপ গার্দিওলার দল। সব ধরনের প্রতিযোগিতা মিলে শেষ পাঁচ ম্যাচে মাত্র একটিতে জিতেছে বায়ার্ন, বাকি চারটি ম্যাচই হেরেছে। অবশ্য নিজেদের মাঠে চ্যাম্পিয়নস লিগের গত দুই ম্যাচ থেকে অনুপ্রেরণা নিতে পারে বায়ার্ন। ওই দুই ম্যাচে শাখতারকে ৭-০ ও পোর্তোকে ৬-১ গোলে উড়িয়ে দিয়েছিল তারা।

 

চ্যাম্পিয়নস লিগে নিজেদের শেষ পাঁচ সেমিফাইনালের চারবারই ফাইনালে উঠেছিল বায়ার্ন। এমনকি টুর্নামেন্টের সেমিফাইনাল থেকে কখনোই টানা দুইবার বিদায় নেয়নি জার্মানির শীর্ষ দলটি। তবে এই প্রথম হয়তো উল্টোটা হতে যাচ্ছে। গতবার রিয়াল মাদ্রিদের পর এবার আরেক স্প্যানিশ ক্লাব বার্সেলোনার কাছে হেরে চ্যাম্পিয়নস লিগের সেমিফাইনাল থেকে বিদায় ঘণ্টা বাজতে যাচ্ছে বায়ার্নের!

Comments

comments

Menu

Koreabashi