১৮৮১ সালের পরে জার্মানিতে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা

0

Garmany1436242704

 

তীব্র দাবদাহ বিরাজ করছে জার্মানিতে। তাপমাত্রার পারদ উঠে গেছে ৪০.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। ১৮৮১ সালের পরে রেকর্ডকৃত এই তাপমাত্রা জার্মানিতে সর্বোচ্চ।

 

জার্মানি ছাড়াও দাবদাহ বিরাজ করছে ইউরোপের বিশাল অংশে। তাপমাত্রার অস্বাভাবিক বৃদ্ধির ফলে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে জনজীবন। টাইমস অব ইন্ডিয়া অনলাইনের এক খবরে মঙ্গলবার এ তথ্য জানানো হয়েছে।

 

জার্মানির বাভারিয়ার কিটজিনজেন শহরে রোববার সন্ধ্যায় ৪০.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়। ২০০৩ সালে এই শহরে ৪০.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়।

 

জার্মানির আবহাওয়া সংস্থা ডিডব্লিউডি জানিয়েছে, গত ২৫ বছরে তাপমাত্রা ক্রমেই বাড়ছে। জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে তাপমাত্রা বেড়ে যাচ্ছে বলে মনে করেন তারা।

 

ডিডব্লিউডির মুখপাত্র উইয়ি ক্রিসচি বলেছেন, দাবদাহে কীভাবে সুস্থ থাকতে হয়, তা লোকজনকে আরো ভালোভাবে শেখা দরকার। এই অবস্থায় বিদ্যুতের চাহিদা বেড়ে যায়, কিন্তু জোগান থাকে কম। বিদ্যুতের দাম বেড়ে যেতে পারে। আগামী দিনগুলোতে বিদ্যুতের দাম ৩২ শতাংশ থেকে ৪০.২ শতাংশ বাড়াতে হতে পারে।

 

গত সপ্তাহে ইউরোপজুড়ে অসহনীয় তাপমাত্রা বিরাজ করেছে। তীব্র গরমে ফ্রান্সে গমের ফলন নষ্ট হয়ে গেছে। যুক্তরাজ্যের জনজীবনে অস্বস্তি নেমে এসেছে। বিজ্ঞানীরা বলছেন, জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে ইউরোপে মারাত্মক খরা সৃষ্টি হতে পারে।

প্রচণ্ড গরমে ২০০৩ সালে ফ্রান্সে ১৪ হাজার এবং জার্মানিতে ৭ হাজার ৫০০ মানুষ নিহত হয়।

Comments

comments

Menu

Koreabashi