নিজে নিজেই চলবে হুইলচেয়ার

0

while-chair

‘সেলফ ড্রাইভিং’ হুইলচেয়ার তৈরির উদ্যোগ নিয়েছে সিঙ্গাপুর। দেশটির ডিজিটাল সেবা বিভাগের আওতায় স্বয়ংক্রিয় এই হুইলচেয়ার তৈরি করা হবে। এতে কম্পিউটার ভিশন, রোবোটিকস এবং আধুনিক মেশিন লার্নিং ও ক্লাউড কম্পিউটিং প্রযুক্তি ব্যবহার করা হবে বলে জানানো হয়। ফলে রোগী অথবা চলাফেরায় অক্ষম ব্যক্তিকে নির্দিষ্ট গন্তব্যে নিজে নিজেই পৌঁছে দিতে পারবে হুইলচেয়ারটি।

 

বর্তমানে মোটরচালিত হুইলচেয়ার আছে, দূরনিয়ন্ত্রণ যন্ত্রের মাধ্যমে তা নিয়ন্ত্রণের সুযোগও আছে। হাসপাতাল কিংবা অন্যান্য জায়গায় রোগীদের বহন করতে হুইলচেয়ার ব্যবহার করা হয়। তবে তা নিয়ন্ত্রণের জন্য দরকার আরেকজন পরিচর্যাকারীর। সিঙ্গাপুরের ডিজিটাল সেবা বিভাগের প্রথম নাগরিক সেবা হতে যাচ্ছে এই সেলফ ড্রাইভিং হুইলচেয়ার। বৃদ্ধ জনগোষ্ঠী যাদের বাড়তি স্বাস্থ্যসেবা ও পরিচর্যার প্রয়োজন রয়েছে, তাদের জন্য এই স্বয়ংক্রিয় হুইলচেয়ার হবে নতুন সহকারী।

 

সম্প্রতি অনুষ্ঠিত ‘ইনভেনশন ল্যাবস ওয়ার্ল্ড’ নামের এক প্রদর্শনী অনুষ্ঠানে সিঙ্গাপুরের ডিজিটাল সেবা বিভাগের প্রধান মার্ক লিম নতুন ধরনের হুইলচেয়ার প্রকল্পের কথা জানান। তিনি বলেন, কেমন হয় যদি হুইলচেয়ার নিজে নিজেই চলতে পারে? দিন দিন পরিচর্যাকারীদের সংখ্যা কমে যাচ্ছে, পরিচর্যাকারীরা এমনিতেই দিনভর অনেক কাজের চাপের মধ্যে থাকেন। তার ওপর তাঁদের রোগীকে নানা জায়গায় স্থানান্তর করতে হয়। এমন ভাবনা থেকেই সরকার এ প্রকল্প হাতে নিয়েছে বলে জানান মার্ক লিম।

Comments

comments

Menu

Koreabashi