গুগলের ডুডলে তারেক মাসুদের মাটির ময়না

0

doodole

 

প্রয়াত চলচ্চিত্র নির্মাতা তারেক মাসুদের ৬২তম জন্মদিনে তার প্রতি সম্মান জানিয়ে বিশ্বব্যাপী ডুডল প্রকাশ করেছে সার্চ ইঞ্জিন গুগল। তার বিখ্যাত সৃষ্টি ‘মাটির ময়না’র আদলে করা হয়েছে এই ডুডল। এখানে দেখা যাচ্ছে মাটির ময়নার আদলে একটি প্রতিকৃতি রূপ। প্রতিকৃতিকে ধরে আছে একটি হাত। তার চারপাশে তিনটি ফুল। আর বিশেষভাবে লেখা গুগল।

 

‘মাটির ময়না’ প্রথম বাংলাদেশি চলচ্চিত্র হিসেবে সেরা বিদেশী ভাষার ছবি বিভাগে অস্কারে মনোনয়ন পেয়েছিল।

 

এ ডুডল বিশ্বের যে কোনো প্রান্তের গুগল ইউজার দেখতে পাবে। এর আগেও বাংলাদেশের পাঁচ কৃতী সন্তানের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে গুগল তৈরি করেছিল ডুডল। তবে সেগুলো ছিল শুধু বাংলাদেশের গুগল ইউজারদের জন্য।

 

এই সম্মাননার জন্য তারেকের স্ত্রী ক্যাথরিন মাসুদ গুগল কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। তিনি বলেন, “এটা সত্যিই অত্যন্ত সম্মানের যে গুগল কর্তৃপক্ষ তারেকের কাজের মূল্যায়ন ও স্বীকৃতি জানাচ্ছে এই ভাবে। তারেক মাসুদ বাংলাদেশের অগ্রগামী নির্মাতাদের একজন ছিলেন। একই সাথে দেশে ও বিদেশে যেমন তার অসংখ্য গুণগ্রাহী ছিল, তেমনি অনেক তরুণ নির্মাতার কাছে ছিলেন অনুকরণীয় আদর্শ।”

 

তারেক মাসুদ ছিলেন একাধারে চলচ্চিত্র পরিচালক, প্রযোজক, চিত্রনাট্যকার, লেখক এবং গীতিকার। মাটির ময়না (২০০২) তার প্রথম ফিচার চলচ্চিত্র, যার জন্য তিনি ২০০২-এর কান চলচ্চিত্র উৎসবে ডিরেক্টরস ফোর্টনাইটসহ বিভিন্ন আন্তর্জাতিক পুরস্কার অর্জন করেন।তার পরিচালিত প্রথম স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র সোনার বেড়ি (১৯৮৫) এবং সর্বশেষ পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‘রানওয়ে’ মুক্তি পায় ২০১০ সালে। চলচ্চিত্রে তার অবদানের জন্য ২০১২ সালে বাংলাদেশ সরকার তাকে একুশে পদকে ভূষিত করে। আদম সুরত, মুক্তির গান, মুক্তির কথা, অন্তর্যাত্রা তারেক মাসুদের অনবদ্য সৃষ্টি।

 

২০১১ সালের ১৩ আগস্ট ‘কাগজের ফুল’ চলচ্চিত্রের শুটিংয়ের লোকেশন দেখে ফেরার পথে এক সড়ক দুর্ঘটনায় চলচ্চিত্রের পথিকৃৎ এই নির্মাতার অকাল মৃত্যু হয়।

 

বণিক বার্তা অনলাইন

Comments

comments

Menu

Koreabashi