বাংলাদেশ নিয়ে চীন-জাপান যুদ্ধ!

0

Hasina11436099497

 

চীন-জাপান যুদ্ধ বেশ পুরোনো। দেশ দুটির মধ্যে বেশ কয়েকবার যুদ্ধ হয়েছে। এবার বাংলাদেশ নিয়ে চীন-জাপান নতুন এক যুদ্ধে নেমেছে! আসলে যুদ্ধটা বাংলাদেশে গভীর সমুদ্রবন্দর নির্মাণ প্রকল্প নিয়ে।

রোববার জাপানের প্রভাবশালী সংবাদমাধ্যম জাপান টাইমসের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বাংলাদেশে প্রথম গভীর সমুদ্রবন্দর নির্মাণের দৌড়ে চীনকে হারাচ্ছে জাপান, যা এ অঞ্চলে ক্ষমতা বিস্তারে ভারত মহাসাগরে প্রবেশে বড় ধরণের ধাক্কা হিসেবে দেখা হচ্ছে।

ব্লমবার্গ নিউজের এক প্রশ্নের জবাবে ইমেলে জাপান আন্তর্জাতিক সহযোগিতা সংস্থা (জাইকা) জানিয়েছে, বাংলাদেশের দক্ষিণাঞ্চলীয় উপকূলে মাতারবাড়িতে ১৮ মিটার গভীর সমুদ্রবন্দর আগামী জানুয়ারি থেকে নির্মাণকাজ শুরু হতে যাচ্ছে। কিন্তু খারাপ সংবাদ যে, এর প্রায় ২৫ কিলোমিটার দূরে চীনের সহায়তায় যে সমুদ্রবন্দর নির্মাণের পরিকল্পনা রয়েছে, সেটি বর্তমানে হুমকির মুখে।

যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক নির্মাণ প্রতিষ্ঠান আইএইচএসের বিশ্লেষক ক্রিসপেন আটকিনসন বলেন, ‘আমি মনে করি, সেখানে একটি মাত্র সমুদ্রবন্দরেরই সুযোগ রয়েছে।’ রেল লাইন ও নির্দিষ্ট চ্যানেলে নির্মাণের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘এখানে রাজনৈতিক কোনো কারণ থাকতে পারে। আপনি যদি সমুদ্রবন্দর নির্মাণ করতে চান, তাহলে পশ্চিমাদেশের সমর্থন প্রয়োজন, যা অর্থায়নকারী চীনের বিকল্প হিসেবে দেখা হবে।’

নতুন এ চুক্তির জন্য চীন দক্ষিণ এশিয়ায়, যেখানে দেশটি সামরিক ও আর্থিক অবস্থা সুসংহত করার জন্য তৎপর, বড় ধরণের ধাক্কা খেল। বঙ্গোপসাগরের বিশাল সম্পদ কব্জা করতে কয়েক বছর ধরে জাপান, চীন ও ইন্ডিয়া বিলিয়ন বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ করে আসছে।

অস্ট্রেলিয়ান ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ভিজিটিং ফেলো ডেভিড ব্রুস্টার বলেন, সেখানে (বঙ্গোপসাগরে) বিশাল একটি পরিবর্তন আসছে। বঙ্গোপসাগরকে দক্ষিণ চীন সাগরের জমজ ভাই হিসেবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, জাপান পরিষ্কারভাবে চীনকে প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে দেখে এবং এ সমুদ্রবন্দর নির্মাণের সুযোগ একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হিসেবে দেখা হচ্ছে। আমি মনে করি, জাপান এ ব্যাপারে খুব খুশি।’

 

মাতারবাড়িতে ২০১৬ সালের প্রথম দিকে নির্মাণের কাজ শুরুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছে বাংলাদশ সরকার। একই সঙ্গে সোনাদিয়া দ্বীপে চীনের সহায়তায় সমুদ্রবন্দর নির্মাণের আলোচনা করছে দেশটি।

Comments

comments

Menu

Koreabashi