৯৬ রানে অলআউট বাংলাদেশ

0

Crick11436086071

 

স্কোরবোর্ডে দক্ষিণ আফ্রিকার সংগ্রহটা খুব বেশি ছিল না।  ১৪৯ রান টি-টোয়েন্টিতে বড় কোনো টার্গেট নয়। কিন্তু তারপরও এই টার্গেট ছুঁতে পারেনি বাংলাদেশ। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে দুই ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথমটিতে মাত্র ৯৬ রানে অলআউট হয়েছে স্বাগতিকরা। ফলে ৫২ রানের দারুণ এক জয় পেয়েছে প্রোটিয়াসরা। পাশাপাশি সিরিজে ১-০ ব্যবধানে লিড নিয়েছে তারা।

 

১৪৯ জয়ের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই উইকেট হারায় বাংলাদেশ। কাইল অ্যাবোটের করা প্রথম ওভারের শেষ বলে আউট হন তামিম (৫)। এরপর রাবাদার করা দ্বিতীয় ওভারের পঞ্চম বলে ডুমিনির হাতে ক্যাচ দিয়ে আউট হন সৌম্য সরকার (৭)। দলীয় ৫০ রানে ডুমিনির বলে উড়িয়ে মারতে গিয়ে মিলারের হাতে ধরা পরেন মুশফিক (১৭)। ডুমিনির করা দশম ওভারের দ্বিতীয় বলে কুইনটন ডি ককের হাতে ধরা পরেন সাব্বির রহমান। নতুন ব্যাটসম্যান নাসির হোসেনও বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি। 

 

দলীয় ৫৭ রানে অ্যারোন ফাঙ্গিসোর বলে আউট হন নাসির (১)। লিটন দাসকে সঙ্গে নিয়ে কিছুটা প্রতিরোধ গড়ার চেষ্টা করেন সাকিব। কিন্তু ৭১ রানের মাথায় সাকিবও (২৬) সাজঘরে ফেরেন। দলীয় ৯৪ রানে রান আউট হন সোহাগ গাজী। একই রানে ফিরে যান লিটন দাসও (২২)।  দলীয় ৯৬ রানে শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে আউট হন মুস্তাফিজুর রহমান।

 

এর আগে টস জিতে ব্যাট করতে নামলে শুরুতেই দক্ষিণ আফ্রিকা শিবিরে আঘাত হানেন আরাফাত সানী ও নাসির হোসেন। ফিরিয়ে দেন সবচেয়ে বিধ্বংসী ব্যাটসম্যান এবি ডি ভিলিয়ার্স ও ডি কককে।  এরপর জেপি ডুমিনি ও ডুপ্লেসিস মিলে ৪৬ রানের জুটি গড়েন।  এই জুটি ভাঙেন আরাফাত সানী।  এরপর সাকিব ফেরান ডেভিড মিলারকে (১)।  পঞ্চম উইকেট জুটিতে  অধিনায়ক ফাপ ডুপ্লেসিস (৭৯) ও রিলে রুশো (৩১) মিলে ৫৮ রান তুলে অপরাজিত থাকেন। 

 

দলীয় ২ রানের মাথায় আরাফাত সানীর বলে এবি ডি ভিলিয়ার্স (২) আউট হন।  ইনিংসের প্রথম ওভারের শেষ বলে খেলতে গিয়ে পয়েন্টে দাঁড়িয়ে থাকা মাশরাফির তালুবন্দি হন ডি ভিলিয়ার্স।  নাসিরের করা চতুর্থ ওভারের শেষ বলে লিটন দাসের হাতে ধরা পরেন কুইনটন ডি কক (১২)।  আরাফাত সানীর করা ১২তম ওভারের দ্বিতীয় বলে নাসিরের হাতে ক্যাচ দিয়ে আউট হন ডুমিনি (১৮)।  আর ১৪তম ওভারের দ্বিতীয় বলে সাকিবের শিকারে পরিণত হন ডেভিড মিলার (১)।

 

মঙ্গলবার সিরিজের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি ম্যাচে মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ-দক্ষিণ আফ্রিকা।

 

এই সিরিজের পাওয়ার স্পন্সর দেশের স্বনামধন্য ইলেকট্রিক্যাল, ইলেকট্রনিক্স, অটোমোবাইলস ও হোম অ্যাপ্লায়েন্স প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন।

Comments

comments

Menu

Koreabashi