দক্ষিন কোরিয়া সম্পর্কে জানুন পর্ব -২

0

second-world-war

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের একটি দৃশ্য

 

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পূর্বে অবিভক্ত দক্ষিন কোরিয়া এবং উত্তর কোরিয়া  মূলত জাপানিদের দখলে ছিল। ১৯৪৫ সালে যখন দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ হয় তখন হেরে যাবার সময় জাপানিরা সমাজতান্ত্রিক দেশ সোভিয়েত ইউনিয়নের কাছে আত্মসমর্পণ করেছিল। এরই ফলশ্রুতিতে অবিভক্ত কোরিয়া ২ ভাগে ভাগ হয়ে গিয়েছিল | ঠিক সেইসময় ১৯৫০ সালে  উত্তর কোরিয়া সমাজতান্ত্রিক দেশ সোভিয়েত ইউনিয়নের মতাদশে সমাজতান্ত্রিক ব্লকের অন্তর্ভুক্ত হয়ে  যায়, আর অন্যদিকে দক্ষিণ কোরিয়া পুঁজিবাদি আমেরিকার মতাদশে এর পুঁজিবাদি ব্লকে যোগ দান করেছিল । তখন থেকে কোরিয়া ২টি ভিন্ন নাম যেমন উত্তর কোরিয়া ও দক্ষিণ কোরিয়া তথা ২টি ভিন্ন অথনৈতিক ব্যবস্থা অনুসরন করে চলতে শুরু করে। আর তখনই দক্ষিণ কোরিয়াতে আমেরিকার পুঁজিবাদ এবং উত্তর কোরিয়াতে সোভিয়েত ইউনিউনের মত সমাজতন্ত্রবাদ চালু হয়ছিল । আর এই মতভিন্নতার পথ ধরে ১৯৪৮ সালে অবিভক্ত কোরিয়া বিভক্তি হয়ে যায়। তখন থেকে উত্তর কোরিয়ার সরকারি নাম রাখা হয়েছিল গণতান্ত্রিক গণপ্রজাতন্ত্রী কোরিয়া আর দক্ষিণ কোরিয়ার সরকারি নাম রাখা হয় প্রজাতন্ত্রী কোরিয়া। আর সে থেকেই উত্তর কোরিয়ার রাজধানী হল পিয়ং ইয়াং আর দক্ষিণ কোরিয়ার রাজধানী হল সিউল।

গত পর্বে যা ছিলঃ  দক্ষিণ কোরিয়া সম্পর্কে জানুন পর্ব -১

 

Comments

comments

Menu

Koreabashi