সাগরে ৮০০ বাংলাদেশি ও রোহিঙ্গা উদ্ধার

0

rohinga3

 

মানব পাচারকারীদের খপ্পরে পড়ে সাগরে নৌযানে ভাসতে থাকা প্রায় ৮০০ বাংলাদেশি ও রোহিঙ্গা মুসলিম অভিবাসীকে উদ্ধার করা হয়েছে। তাদের বহনকারী নৌকাগুলো ডুবে যেতে দেখে ইন্দোনেশিয়ার জেলেরা তাদের উদ্ধার করে তীরে আনেন।

 

নিউ ইয়র্ক টাইমস ও সিবিএস ডটকম শুক্রবার এ খবর জানিয়েছে। 

 

ইন্দোনেশিয়ার সুমাত্রা দ্বীপের আচেহের পূর্ব উপকূলে নৌযানে ভাসতে থাকা ওই অভিবাসীদের শুক্রবার সকালে তীরে আনেন স্থানীয় জেলেরা। পরে তাদের লাঙসা শহরে আনা হয়েছে।

 

লাঙসা শহরের পুলিশ প্রধান সুনারিয়া জানিয়েছেন, তারা প্রাথমিকভাবে তথ্য পেয়েছেন, মালয়েশিয়ার নৌবাহিনীর সদস্যরা অভিবাসীদের ইন্দোনেশিয়ার জলসীমায় ঠেলে দিয়েছে। ইন্দোনেশিয়ার জলসীমায় আসার পর নৌযানগুলো ডুবে যাচ্ছিল। সেখানে উপস্থিত থাকা স্থানীয় জেলেরা তাদের নৌযান থেকে পারাপার করে নিজেদের নৌকায় করে তীরে আনেন।

 

বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে টেলিফোনে লাঙসার কর্মকর্তা খাইরুল নোভা বলেন, গভীর সাগরে ভাসমান ৭৯৪ জন অভিবাসীকে তীরে আনা হয়েছে। জেলেরা তাদের অবস্থানের বিষয়টি টের পান। তাদের ছয়টি নৌকায় করে আচেহ প্রদেশের পূর্ব-উপকূলীয় শহর লাঙসাতে আনা হয়েছে। নৌকাগুলো ডুবে যেতে দেখে জেলেরা তাদের সাহায্য করেন।

 

এদিকে তিন শতাধিক রোহিঙ্গা বোঝাই সমুদ্রে ভাসমান একটি নৌযান থাইল্যান্ডের কোস্ট গার্ডের সদস্যরা হটিয়ে দিয়েছে। ওই নৌকাটিও ইন্দোনেশিয়ার জলসীমায় ঢুকে পড়েছে বলে জানিয়েছে ইন্দোনেশীয় সরকার।

 

ইন্দোনেশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী শুক্রবার ব্যাংকক পোস্টকে জানিয়েছেন, রোহিঙ্গা শরণার্থীদের বিতাড়িত করা অথবা তাদের নির্জন দ্বীপে বাস্তুসংস্থানের ব্যবস্থা করার ইচ্ছা তাদের নেই।     

Comments

comments

Menu

Koreabashi