পোষ্য কুকুর পেল ৮টি আইফোন!

0

205158dog_kalerkantho_pic

 

বাবা-মায়েদের অর্থ, ক্ষমতার জোরে দম্ভে মাটিতে পা পড়ে না বিলাসবহুল জীবনযাপনে অভ্যস্ত চীনের রাজনৈতিক প্রতিপত্তিশালীদের ছেলেমেয়েদের, এমনই শোনা যায় নানা রিপোর্টে। সাধারণের কাছে যা অস্বাভাবিক, সেটা তারা করে ফেলতে পারেন অনায়াসে। তারই প্রমাণ ওয়াং সিকং। কেউকেটা সিকং-এর বাবা ওয়াং জিয়ানলিন চীনের সবচেয়ে ধনী বিলিওনেয়ার। ডালিয়ান ওয়ান্ডা গ্রুপের চেয়ারম্যান। মাত্র ২৮ বছর বয়সী ওয়াং নিজের পোষ্য কুকুরকে একটিমাত্র নয়, ৯৫৮৪ মার্কিন ডলার দাম দিয়ে আটখানা আইফোন ৭ কিনে দিয়েছেন! যেদিন দুনিয়াজুড়ে তুমুল কৌতূহল, উদ্দীপনার মধ্যে এই মহার্ঘ্য ফোনটি বাজারে এসেছে, ঠিক সেদিনই সেগুলি কিনে ফেলেন বড়লোক বাবার একমাত্র ছেলে সিকং। শুধু বড়লোকই নন। মনটাও অনেক বড়। তা না হলে কেউ নিজের কুকুরকে কেউ আইফোন ৭ গিফট করে!

গত সপ্তাহে প্রিয় পোষ্য কোকোর দুটি ছবি তারই ওয়েইবো সোস্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টে পোস্ট করেছেন সিকং। তাতে দেখা যাচ্ছে, আইফোনগুলি বাক্স খুলে বের করা হয়নি। গদির ওপর বসে আলাস্কার মালামুট প্রজাতির কুকুরটি। তার চারপাশে পড়ে আছে বাক্সগুলি।
মালিকের মতোই নামডাক আছে কোকো-র। সোস্যাল মিডিয়ায় তার ওয়েইবো অ্যাকাউন্টটির ফলোয়ার প্রায় ২০ লক্ষ। চিনের সবচেয়ে ধনী কুকুর ৮ বছরের এই কোকো কালো, গোলাপী  রঙের আইফোন ৭ হ্যান্ডসেটগুলি নিয়ে ছবির জন্য পোজ দিয়েছে বলে জানিয়েছে ‘সাউথ চায়না মর্নিং পোস্ট’।

তবে এটাই প্রথমবার নয়। এর আগেও দামি দামি গিফট দেওয়া হয়েছে কোকোকে। ২০১৫ সালে কোকোকে দেখা গিয়েছিল দুটি অ্যাপল ওয়াচ পরা অবস্থায়। যেগুলোর দাম ছিল প্রায় ৩৭,০০০ ডলার।

Comments

comments

Menu

Koreabashi